সর্বশেষ
Home / জাতীয় / নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলা কারী খৃস্টান সন্ত্রাসীর অবিলম্বে বিচার করতে হবে: সৈয়দ ফয়জুল করীম

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলা কারী খৃস্টান সন্ত্রাসীর অবিলম্বে বিচার করতে হবে: সৈয়দ ফয়জুল করীম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে খ্রিস্টান সন্ত্রাসীদের বন্দুক হামলায় অর্ধশতাধিক মুসল্লী হত্যাকান্ডের ঘটনায় জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে বিচার দাবি করেছেন।

 

তিনি বলেন ঈঙ্গ-মার্কিন গোষ্ঠী পরিকল্পিতভাবে টেরোরিস্ট আখ্যা দিয়ে মুসলমানদের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে আসছে। অথচ ইতোপূর্বেও বিভিন্ন ঘটনায় প্রমাণিত হয়েছে বিভিন্ন ধর্মের লোকেরা সন্ত্রাসের সাথে সরাসরি জড়িত।

 

আজকে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলায় জড়িতদের নাম প্রকাশ হয়েছে। তারাও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী। এই হামলায় যে কারণ’ই উল্লেখ করা হোক না কেন, আমরা মনে করি এ হামলা বিশ্ব মুসলিমের উপর হয়েছে।

 

আমাদের ভাইদের শাহাদাতের ঘটনায় আমরা মর্মাহত ও ক্ষুব্ধ। তিনি অবিলম্বে এ হামলার আন্তর্জাতিক তদন্ত দাবি করেন এবং অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

 

গতকাল শুক্রবার বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে খ্রিস্টান সন্ত্রাসীদের বন্দুক হামলায় অর্ধশতাধিক নামাজরত মুসল্লী হত্যার প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আন্দোলনের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা সৈয়দ মোহাম্মদ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম আতিকুর রহমান, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূূম, মাওলানা নেছার উদ্দিন, আলহাজ¦ জান্নাতুল ইসলাম, মাওলানা লোকমান হোসেন জাফরী, মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, ফজলুল হক মৃধা প্রমুখ।

 

সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী বলেন, আজকের হামলাকে কেন্দ্র করে নিউজিল্যান্ডের সকল মসজিদ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। হামলার জন্য তো মুসল্লিরা দায়ি নয়, তারপরও মসজিদ বন্ধ করে দেয়া হলো কেন? অবিলম্বে সকল মসজিদ খুলে দিতে হবে এবং মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

 

বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে বায়তুল মোকাররম উত্তর গেট থেকে একটি বিশাল মিছিল শুরু হয়ে পুরানা পল্টন, দৈনিক বাংলা মোড় হয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয় এসে সমাপ্ত হয়।

প্রিন্ট

About এডমিন

Check Also

চুয়াডাঙ্গায় এডাব আয়োজনে সম-নাগরিকত্ব শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

রিফাত রহমান :বাংলাদেশে কর্মরত বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা সমুহের সমন্বয়কারী প্রতিষ্ঠান এডাব চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আয়োজনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *