সর্বশেষ
Home / বিনোদন / ক্ষতিগ্রস্ত সেনা পরিবার পাবে আইপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অর্থ

ক্ষতিগ্রস্ত সেনা পরিবার পাবে আইপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অর্থ

অনলাইন ডেস্ক: ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় গোটা ভারত যেন স্তব্ধ। এ আইপিএলে অবস্থায় জাকজমকপূর্ণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করছে না বিসিসিআই। ওই অনুষ্ঠানের জন্য বরাদ্দ করা অর্থ পুলওয়ামায় নিহত জওয়ানদের পরিবারের সাহায্যার্থে ব্যয় করা হবে। শুক্রবার দিল্লিতে ভারত-পাক ক্রিকেট নিয়ে বোর্ডের সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স (সিওএ) বৈঠকে হয় এমন সিদ্ধান্ত।

আইপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মানে গ্লামারনির্ভর বলিউড তারকাদের নিয়ে জাকজমক অনুষ্ঠান। গত বছর আইপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হৃতিক রোশন, বরুণ ধাওয়ান, প্রভু দেবা ও জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজরা মাতিয়েছিলেন মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম। সে দিনই মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ও চেন্নাই সুপার কিংসের মধ্যে ম্যাচ দিয়ে আইপিএল ১১ শুরু হয়। এবারেও সে রকমই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আইপিএল এর ১২তম আসর শুরুর পরিকল্পনা করা হয়।

 

কাশ্মীরে সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী হামলার ভয়ঙ্কর ঘটনায় ৪০জন ভারতীয় সেনা নিহত হয়। এ অবস্থায় শোকে ভারাক্রান্ত ভারতে আইপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান না করাই ভাল বলে মনে করেন সিওএ সদস্যরা। সিওএ প্রধান বিনোদ রাই শুক্রবার বৈঠকের পরে বলেন, ‘আইপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এ বার করছি না আমরা। এর জন্য যে অর্থ বরাদ্দ করা ছিল, সেই অর্থ দিয়ে নিহত জওয়ানদের পরিবারকে সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

 

এর আগে নিহত নিহত সেনাদের পরিবারসমূহকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন ক্রিকেটারেরা। গত সপ্তাহে মোহাম্মদ সামি আর্থিক সহায়তা করেছেন। তার ভারতের সাবেক ক্রিকেটার বীরেন্দ্র শেবাগ জানান, তিনি নিহত জওয়ানদের পরিবারের শিশুদের পড়াশোনার দায়িত্ব তুলে নেবেন। এবার রঞ্জি ও ইরানি ট্রফি জয়ী বিদর্ভ দলও পুরস্কার অর্থ তুলে দিয়েছে বিপন্ন পরিবারগুলির সাহায্যে।

প্রিন্ট

About এডমিন

Check Also

আন্দুলবাড়ীয়ায় নব-নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান-মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এলাকাবাসীর ভালোবাসা ও ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত

আন্দুলবাড়ীয়া প্রতিনিধি: সদ্য অনুষ্ঠিত তৃতীয় ধাপে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনত্তোর জীবননগর উপজেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *