সর্বশেষ
Home / শিক্ষা / এনইউবিটি খুলনাতে পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ স্টার্ট-আপ প্রতিযোগিতার ক্যাম্পাস ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়

এনইউবিটি খুলনাতে পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ স্টার্ট-আপ প্রতিযোগিতার ক্যাম্পাস ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়

নর্দান ইউনিভাসির্টি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি খুলনাতে ২ মত শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত হলো পৃথিবীর সর্ববৃহৎ স্টার্টআপ প্রতিযোগীতা “হল্টপ্রাইজ ২০১৯’’ এর “অনক্যাম্পাস’’ফাইনাল।

প্রতিযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয়টির বিভিন্ন বিভাগের ২০টির অধিক দল অংশ গ্রহণ করে। বিভিন্ন ধাপে বাছাই শেষে ৬টি দল ফাইনালে তাদের আইডিয়া উপস্থাপন করার সুযোগ পায়। এ বছরের প্রতিযোগীতার প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল “বেকারত ¡ সমস্যা দূরীকরণ’’ যেখানে ১০ বছরে ১০ হাজার লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করাই ছিলো মূল লক্ষ্য।

বেকারত্ব দূরী করণের বিভিন্ন সমস্যা ও তার সমাধান উল্লেখ করে এই ৬টি দল এবং সম্মানিত বিচারকদের রায়ে বিজয়ী হয় “জেফী’’। উক্ত অনুষ্ঠানের বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় অনুষদের সম্মানিত অধ্যাপক ড.মোঃ নূর ঊন নবী, গুগল বিজেনেস গ্রুপ খুলনা এর ম্যানেজার মোঃ আতাহার আলী আনসারী, ইউএসএআইডি এর কমিউনিকেশন এনালিস্ট আশিকুর র–শদী এবং আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল জয়ী প্রতিষ্ঠান গ্রামীন ব্যংকের খুলনার আঞ্চলিক কার্যালয়ের ম্যানেজার জনাব মোঃ আনসার–জ্জামান।

বেকারত্ব দূরীকরণ বিষয়ে অধ্যাপক ড. মোঃ নূর ঊন নবী বলেন, “তর–নদের উচিৎ সোস্যাল বিজনেস (সামাজিক ব্যবসা) এর প্রতি আগ্রহী হওয়া এবং নিজেদের যোগ্য উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলে সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে অবদান রেখে দেশ ও জাতিকে সমৃদ্ধের পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।’’ উক্ত অনুষ্ঠানে বিজয়ীদল এর হাতে পুরস্কার তুলে দেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসা অনুষদের সম্মানিত অধ্যাপক ড. মোঃ নূর ঊন নবী।

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রভাষক জনাব মোঃ রবিউল হাসান। উক্ত অনুষ্ঠানের অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী উপদেষ্টা জনাব মোঃ রবিউল ইসলাম,বিভাগীয় প্রধান (আইন অনুষদ) এবং ডিএসএঅব নর্দান ইউনিভাসির্টি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি খুলনা মোঃ রাজীব হাসনাত শাকিল সহ আরও অনেকে।

এ ধরনের অনুষ্ঠান ক্যাম্পাস প্রাঙ্গনে আয়োজন করার বিষয়ে হল্ট প্রাইজ এর ক্যাম্পাস ডিরেক্টর কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী মোঃ ফারহান জামান বলেন, এ ধরনের প্রতিযোগীতা শিক্ষার্থীদের চিন্তা শক্তি বিকাশে সহায়তা করে এবং বর্তমান পরিস্থিতি ও সমস্যা অনুধাবনের মাধ্যমে এর বাস্তব সমাধানের সুযোগ সৃষ্টি করে।তাই শিক্ষার্থীদের উচিৎ এ ধরনের প্রতিযোগিতা গুলোতে স্বতঃস্ফূতর্ ভাবে অংশ গ্রহন করা।

বিজয়ী দলটি আগামী ১৩ই এপ্রিল ২০১৯ তারিখে ভারতের মুম্বাইয়ে অনুষ্ঠিতব্য প্রতিযোগিতার ২য় ধাপ (রিজিওনাল) এ অংশ গ্রহন করবে।

প্রিন্ট

About এডমিন

Check Also

ডেনমার্কে কুরআন পুড়িয়ে উল্লাস প্রকাশ ও তাক্বী উসমানীর ওপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই: ইসলামী আন্দোলন

পাকিস্তানের সাবেক বিচারপতি, ইসলামিক স্কলার আল্লামা তাকি উসমানির ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *