সর্বশেষ
Home / অপরাধ-দুর্নীতি / আলমডাঙ্গায় এক‘শ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

আলমডাঙ্গায় এক‘শ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

আলমডাঙ্গা অফিস: মাদক নির্মূলে আলমডাঙ্গা উপজেলা ব্যাপী থানা পুলিশের ফেলে রাখা জালে এবার ধরা পড়েছে দামুড়হুদার সড়াতলার মাদক ব্যবসায়ী আবু বাক্কা। সে এক‘শ বোতল ফেন্সিডিলসহ পুলিশের হাতে আটক হয়েছে। তবে সে মাদক পাচারে অভিনব কৌশল অবলম্বন করে। বিঁচুলি ভর্তি গাড়িতে করে ফেন্সিডিলের চালান নিয়ে যাওয়ার সময় আটক হয়েছে আবু বাক্কা। গতকাল সকাল ৯ টার সময় আলমডাঙ্গার থানার পাশের সড়কে পশুহাসপাতালের সামনে থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। আবু বাক্কা চুয়াডাঙ্গার দর্শনার মদনা ইউনিয়নের সড়াতলা গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে।

আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ খান জানান, আলমডাঙ্গায় কোন মাদকদ্রব্যের অস্তিত্ব নেই। দর্শনা থেকে মাদক ব্যবসায়ী বাক্কা এক‘শ বোতলের এই চালান কুষ্টিয়ার হালসায় নিয়ে যাচ্ছিল।

ফেন্সিডিলের উৎস ও কার কাছে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তার জানতে পুলিশ আটক বাক্কাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। আলমডাঙ্গার কেউ এর সাথে জড়িত আছে কিনা তাও জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। তবে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, আটক মজিবরের নামে দামুড়হুদা থানায় মাদকের কোন মামলা নাই। একটি মারামারি মামলা রয়েছে। এ থেকে ধারনা করা হচ্ছে মজিবর মাদক ব্যবসায় নতুন নেমেছে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই উপজেলা ব্যাপী আলমডাঙ্গা থানার ফেলে রাখা জালে সে ধরা পড়েছে।

এদিকে, গতকাল সকালে থানার একেবারে সামনে থেকে এক‘শ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারের ঘটনায় শহরে তোলপাড় ওঠে। মানুষের জটলা বেঁধে যায়। মাদক ব্যবসায়ী থানার সামনে দিয়ে ফেন্সিডিলের চালান কেন নিয়ে যাবে? এ ধরনের প্রশ্ন করতে দেখা যায় অনেককে।

এ প্রশ্নের উত্তরে ওসি আবু জিহাদ খান বলেন, মাদক ব্যবসায়ী বাক্কা নিজেকে সন্দেহের বাইরে রাখতে থানার সামনে দিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিল। তবে জিজ্ঞাসাবাদে প্রকৃত ঘটনা কি তা জানা যাবে।

প্রিন্ট

About এডমিন

Check Also

আমার সংবর্ধনার প্রয়োজন নেই, আমি জনগণের সেবক: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০০১ সালে গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে বিএনপি ক্ষমতায় এসেছিল। আমি মুচলেকা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *